বাড়িক্রিকেট১২৯ রানের বিশাল জয় পেয়েছে পাকিস্তান

১২৯ রানের বিশাল জয় পেয়েছে পাকিস্তান

pakisthan

স্টাফ রিপোর্টার, সময় সংবাদ বিডি-

ঢাকাঃ বিশ্বমঞ্চে পরপর দুই ম্যাচে হারের পর টানা দুই ম্যাচ জিতে জয়ের ধারায় ফিরেছে  পাকিস্তান। বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয় তুলে নিল পাকিস্তান। সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ১২৯ রানে হারিয়েছে পাকিস্তান।

বিশ্বকাপে পুল ‘বি’র ম্যাচে নেপিয়ারে মুখোমুখি হয় পাকিস্তান এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত।

পাকিস্তানের ছুঁড়ে দেওয়া ৩৪০ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নামে সংযুক্ত আরব আমিরাত। পাকিস্তানের দুই পেস বোলার মোহাম্মদ ইরফান আর সোহেল খানের অসাধারণ বোলিংয়ে আমিরাত প্রথম ৫ ওভার থেকে কোনো উইকেট না হারিয়ে মাত্র ৬ রান তোলে। দলীয় ২৫ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে আমিরাতের।

দলীয় ১০৮ রানের মাথায় আমিরাতের চতুর্থ উইকেটের পতন ঘটলেও ব্যাটিং ক্রিজে থেকে রানের চাকা ঘোরাচ্ছিলেন আমিরাতের তারকা ব্যাটসম্যান শাইমান আনোয়ার।

৮৩ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন খুররম খান। সোয়েব মাকসুদের বলে ওয়াহাব রিয়াজের তালুবন্দি হওয়ার আগে খুররম খান ৫৪ বলে তিনটি চার আর একটি ছয়ের সাহায্যে করেন ৪৩ রান। শেষমেশ নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ২১০ রান তোলে আরব আমিরাত।

নেপিয়ায় টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার আহমেদ শেহজাদ, মিসবাহ উল হক, হারিস সোহেল আর সোয়েব মাকসুদের ব্যাটে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান তুলেছে ৩৩৯ রান।

শুরুতেই উইকেট খোয়ায় পাকিস্তান। দলীয় ১০ রানের মাথায় খুররম খানের তালুবন্দি হন জামশেদ। আউট হওয়ার আগে তিনি ১২ বলে মাত্র ৪ রান করেন।

দলীয় ১০ রানে ওপেনার নাসির জামশেদকে হারিয়ে আরেক ওপেনার আহমেদ শেহজাদ এবং তিন নম্বরে ব্যাটিং ক্রিজে আসা হারিস সোহেল পাকিস্তানকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান।আহমেদ শেহজাদ আর সোহেল ১৬০ রানের জুটি গড়েন। শেহজাদ ওয়ানডে ক্যারিয়ারের এগারোতম আর সোহেল ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় অর্ধশতক তুলে নেন। দু’জনই বিশ্বমঞ্চে প্রথমবারের মতো অর্ধশতকের দেখা পান।

হারিস সোহেলের বিদায়ের পর ফেরেন পাকিস্তানের ওপেনার আহমেদ শেহজাদ। ব্যক্তিগত ৯৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সপ্তম শতকের অপেক্ষায় থাকা শেহজাদ।

দ্রুতই রান তোলার চেষ্টা করতে গিয়ে বিদায় নেন সোয়েব মাকসুদ। মিসবাহের সঙ্গে ৫৩ বলে ৭৫ রানের জুটি গড়ে ব্যক্তিগত ৪৫ রান করে ফেরেন মাকসুদ।

৪৯তম ওভারে একই ওভারে পরপর দুই উইকেট তুলে নেন মানজুলা গুরুজি। তৃতীয় বলে উমর আকমলকে এবং চতুর্থ বলে মিসবাহকে ফেরান গুরুজি। আকমল ১৩ বলে ১৯ আর মিসবাহ ৪৯ বলে ৬৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

শেষ দিকে নেমে মাত্র ৭ বলে একটি চার আর দুটি ছক্কা হাঁকিয়ে আট হাজারি রানের ক্লাবে ঢোকার পাশাপাশি আফ্রিদি করেন অপরাজিত ২১ রান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Must Read

spot_img