বাড়িবিচিত্রদর্শকদের হৃদয়ে এখনও ড্রিমগার্ল হেমা মালিনী!

দর্শকদের হৃদয়ে এখনও ড্রিমগার্ল হেমা মালিনী!

সময় সংবাদ বিডি ঢাকা || বিনোদন ডেস্ক || সপনো কা সওদাগর’ ছবি দিয়ে তার অভিনয় জীবনের শুরু। এটি মুক্তি পায় ১৯৬৮ সালে। এই ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন রাজ কাপুরের। সেই ছবির পোস্টারে ‘ড্রিম গার্ল’ খেতাব পান। সেই থেকে এখনও তিনি বলিউডের ড্রিমগার্ল তথা ‘স্বপ্নচারিণী’। তিনি অভিনয় করেছেন অসংখ্য ছবিতে।

বলা হচ্ছিল – বলিউড অভিনেত্রী হেমা মালিনী’র কথা। তার বয়স এখন ৭৫। কিন্তু ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের বিখ্যাত শহর মথুরার এই সংসদ সদস্যকে এখনো স্বচ্ছন্দে মধ্য পঞ্চাশের বলে চালিয়ে দেওয়া যায়। ভারতের রক্ষণশীল তামিল আয়েঙ্গার ব্রাহ্মণ (পরিভাষায় টাম-ব্রাম) পরিবারে জন্ম হেমা মালিনী’র। স্কুলে তার প্রিয় বিষয় ছিল ইতিহাস। তবে ক্লাস ইলেভেনের পর লেখাপড়া হয়ে ওঠেনি। তামিল ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ফিল্ম ক্যারিয়ার শুরু করে দিয়েছিলেন।

১৯৭০ সালে ধর্মেন্দ্র – হেমা জুটির প্রথম ছবি ‘তু হাসিন, ম্যায় জওয়ান’। ছবির সেটেই তাদের পরিচয়। ক্রমে মন দেওয়া – নেওয়া। ধর্মেন্দ্র তখন ঘোরতর বিবাহিত। সন্তানের পিতা। তবুও দুজনের মোহমুগ্ধ হয়ে পড়েন। তাইতো ১৯৮০ সালে ধর্মেন্দ্রকেই বিয়ে করেন।

জানা যায়, ভারত সরকার তাকে পদ্মশ্রী খেতাব দিয়েছিল ২০০০ সালে। তার তিন বছরের মাথায় তিনি রাজ্যসভার মনোনীত সংসদ সদস্য হন। ২০০৩ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত সেই পদে। ২০১১ সালে এক বছরের জন্য কর্ণাটক থেকে রাজ্যসভায় ছিলেন হেমা। এরপর ২০১৪ সালে সরাসরি মথুরা থেকে লোকসভায়। এখন পুরোদস্তুর রাজনীতিক।

এদিকে লোকসভার সাংসদ হয়ে গোড়ায় বিপাকে পড়েছিলেন হেমা। কাজটা কী, সেটাই বুঝতে পারতেন না। প্রথম পাঁচ বছর কেটে গিয়েছিল প্রশাসনের সঙ্গে তাল রেখে সাংসদ তহবিলের টাকা খরচ করা আর হিসেব দেওয়া বুঝতেই। তবে পরের পাঁচ বছর চুটিয়ে কাজ করেছেন তিনি। আর এখন তো ছবিতে অভিনয় প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন। কিন্তু ভরতনাট্যম ছাড়তে পারেননি। তার কাছে অভিনয়ের আগে নাচ। ভরতনাট্যমই তার প্রথম প্রেম। নাচ না থাকলে অভিনয়ে আসতেন কি না, তা নিয়ে তার নিজেরও সন্দেহ আছে। দুই কন্যাকে পাশে নিয়েও মঞ্চে নেচেছেন তিনি।

এদিকে অন্য অভিনেতা – অভিনেত্রীদের মতো ইনস্টাগ্রামে অহরহ নিজের ‘আপডেট’ দিতে পছন্দ করেন না হেমা মালিনী। তিনি সাবেক ধ্যানধারণায় বিশ্বাসী যে, ভক্তেরা রোজ তাকে দেখলে উৎসাহ কমে যাবে। তবে দুই কন্যা এষা – অহনা তাদের তারকা মাকে ইনস্টাগ্রামে আনার জন্য প্রায় সালিশি সভা বসিয়েছিলেন। অবশেষে হেমা রাজি হন। আপাতত ইনস্টাগ্রামে তার ‘ফলোয়ার’ প্রায় ১০ লাখ। পোস্টের সংখ্যা মাত্র ৬০০ পেরিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Must Read

spot_img